আমানত স্তর নির্ধারক উপাদান সমূহ [ Factors Determining the Level of Deposits ]

আমানত স্তর নির্ধারক উপাদান সমূহ আমানতের পরিমানের ভিত্তিতে একটি ব্যাংকের তথা ব্যাংকের শাখা সমূহের মর্যাদা চিহ্নিত করা হয়ে থাকে মর্যাদার ভিত্তিতে বেশী পরিমাণ আমানতকারী ব্যাংক বা একটি শাখাকে ‘ক’ স্তরের ব্যাংকের শাখা। মধ্য পরিমানের আমানত হলে ‘খ’ স্তরের ব্যাংক বা ব্যাংক শাখা। যদি কোন ব্যাংকের আমানতের পরিমা তুলনামূলক ভাবে কম বা অসন্তোষজনক পর্যায়ের হয় তবে ব্যাংককে বা শাখাকে ‘গ’ পর্যায়ের ব্যাংক বল হয়ে থাকে।

আমানত স্তর নির্ধারক উপাদান সমূহ [ Factors Determining the Level of Deposits ]

আমানত স্তর নির্ধারক উপাদান সমূহ [ Factors Determining the Level of Deposits ]

নিচের উদাহরণ থেকে বিষয়টি পরিষ্কার হতে পারে ।

আমানতের স্তরভিত্তিক ব্যাংক তথ্য শাখা বিন্যাস

স্তর সমূহব্যাংক টাকার অংক (কোটি)শাখা টাকার অংক (লক্ষ)
ক স্তরের ব্যাংক১০০ কোটি টাকার উর্ধ্বে৫০০ লক্ষ ও উর্ধ্বে
খ স্তরের ব্যাংক১০০ থেকে ১০০০ কোটি৫০ লক্ষ থেকে ৫০০
গ স্তরের ব্যাংক১০০ কোটির কম৫০ লক্ষ টাকার কম

 

পূর্বে বর্ণিত ব্যাংক তথা শাখা বিন্যাস থেকে বোঝা যায় একটি ব্যাংক তথা ব্যাংক নিয়ন্ত্রন কর্তৃপক্ষ ভিত্তিতে ব্যাংকের মর্যাদা দিয়ে থাকে। উল্লেখ্য যে, এই আমানতের স্তর লক্ষ্য করে সেবা সুনাম জেনে ব্যাং বর্তমান ও ভাবি মকেল ব্যাংক নির্বাচন অথবা ব্যাংক পরিবর্তন করে থাকে। এতদভিন্ন আমানতের ভিত্তিতে কর্মকর্তা কর্মচারীদের সুযোগ সুবিধা দেয়া হয়ে থাকে। বাজার অর্থনীতির যুগে বেসরকারী বা সমূহ ব্যাংক কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দকে অধিকতর চৌকষ ও প্রগতিশীল করার মানসে বেতন ভাতা অন্যান্য সুবিধাদী প্রদানের মাধ্যমে প্রেষনা সৃষ্টি করে।

এটা থেকে বোঝা যায় যে, একটি ব্যাংকের তথা একটি ব্যাংকের শাখার কর্মকর্তা নিজেদের সাে জামানতের স্তর উন্নতি করার চিন্তা চেতনা ও কৌশল অবলম্বন করে থাকে। ইতিপূর্বে ব্যাপারে বিভিন্ন কৌশলের অবতারণা করা হয়েছে। যে সকল উপাদান আমানত স্তর হ্রাস-বৃদ্ধিতে প্রভার যাকে তার কয়েকটি ব্যাংকের আভ্যন্তরীণ বিষয়। এগুলো ব্যাংক তথা কর্মচারীবৃন্দ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। অপর পক্ষে কয়েকটি উপাদান যা ব্যাংকের আওতার বাইরে কিন্তু আমানত হ্রাস-বৃদ্ধিতে এ সফল উপাদান প্রস্তুত ভার রাখতে সক্ষম। নিজের চিত্র থেকে আমানত বৃদ্ধার পাগান সমূহ দেখা যেতে পারে।

আমানত স্তর নির্ধারক উপাদান সমূহ [ Factors Determining the Level of Deposits ]

আমানত স্তর নির্ধারক উপাদান সমূহ

১।আভ্যন্তরীণ উপাদান

  • ‘ব্যাংক কর্মকর্তাদের যোগ্যতা।
  • বহুধা সেবা ও প্রকল্প
  • জনগণের আস্থা ও বিশ্বস্ততা
  • সুদের হার।

২।বহিঃ উপাদান

  • জাতীয় অর্থনৈতিক অবস্থা
  • স্থানীয় অর্থনীতির বৈশিষ্ট্য
  • সমাজ উন্নয়নে সরকারের ভূমিকা।
  • জনসংখ্যার আপেক্ষিক পরিবর্তন।

আমানত স্তর নির্ধারক উপাদান সমূহ [ Factors Determining the Level of Deposits ]

আভ্যন্তরীণ উপাদান (Internal Factors)

ব্যাংক, ব্যাংকের শাখা সমূহ আমানতকারীদের দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য তার আভ্যন্তরীণ উপাদান সমূহের প্রতি অধিকতর গুরুত্বারোপ করে থাকে। নিম্নে উক্ত আভ্যন্তরীণ উপাদান সম্পর্কে আলোকপাত করা হল :

১। ব্যাংক কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দক্ষতা (Quality of Bank Personnel )

একটি ব্যাংকের কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ যদি তাদের অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞানকে সুষ্ঠুভাবে কাজে লাগিয়ে ব্যাংক পরিচালনা করে তাহলে তাদের প্রতি আমানতকারীরা আকৃষ্ট হবেন। ফলে আমানতের পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে। সেবারমান যদি অধিকতর উন্নত ত গ্রহণযোগ্য হয় এবং ব্যাংকারগণ আমানতকারীদের সংগে মার্জিত ও বন্ধুত্বসুলভ আচরণ করেন তবে আমানতকারীগণ উক্ত ব্যাংকের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে অধিক আমানত রাখবেন। ফলে উক্ত বিষয়টি আমানত নির্ধারনে বিশেষ ভূমিকা রাখে।

২। বহুধা সেবা ও প্রকল্প (Diversified Services )

বর্তমান প্রতিযোগিতামূলক বাজারে ব্যাংক ব্যবসা অত্যন্ত জটিল ও প্রতিযোগিতার সম্মুখীন।
বহুবিধ আকর্ষণীয়, গ্রহণযোগ্য ও সময়োপযোগী প্রকল্প গ্রহণের মাধ্যমে ব্যাংক সেবাকে ব্যাপকতর করে ব্যাংক পরিমাণ বৃদ্ধি করা যায়। যে সমস্ত ব্যাংক উক্ত কার্য সম্পাদন করে সে ব্যাংকের আমানতের পরিমাণ বেশী হয় বলে দেখা গেছে। সুতরাং বহুধা সেবা ও প্রকল্প আমানত পরিমাপের একটি অন্যতম নির্ধারক।।

৩।জনগণের আস্থা ও বিশ্বাস (Public Confidence )

আমানতকারীগণ এমন একটি ব্যাংকের সহিত লেনদেন করতে বেশী আগ্রহ প্রকাশ করেন যে ব্যাংক আস্থাশীল ও বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করেছে। লক্ষ্য করলে দেখা যায় জনগণ ব্যাংকে টাকা আমানত রাখে নিরাপত্তার তাগিদে। কিন্তু উক্ত ব্যাংকের খেলাপী বা দেউলিয়া হবার সম্ভাবনা থাকলে জনগণ উক্ত ব্যাংকের প্রতি আস্থা ও বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেন। এজন্য ব্যাংকের আমানতের হ্রাস-বৃদ্ধিতে ব্যাংকের জনগণের আস্থা ও বিশ্বাসের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে।

সুদের হার Interest Rate ব্যাংকে নানাবিধ হিসাব পদ্ধতি চালু আছে। ব্যাংক এক হিসাব সমূহে অ আমানতের উপর আমানতকারীদের নির্দিষ্ট সুদ প্রধান করে থাকে। এ সময় হ্রাস বৃদ্ধি ে এটির প্রতি জনগন এবং অধিক পরিমাণ আমানত রাখে। এতে করে আমানতের পরিমাণ বেড়ে যায়। এজন্য সুদের হার নির্ধারণ আমানত নির্ধারণের ক্ষেত্রে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখে। বহি উপাদান সমূহ External Factors আভ্যন্তরীণ উপাদানের নাম আমানত নির্ধারণের ক্ষেত্রে অনেক বহিঃ উপাদান নানাভাবে ভূমিকা রেখে থাকে।

আমানত স্তর নির্ধারক উপাদান সমূহ [ Factors Determining the Level of Deposits ]

বহিঃ উপাদান উপাদান (External Factors)

১ জাতীয় অর্থনৈতিক অবস্থা(State of the National Economy)

একটি দেশের অর্থনৈতিক অবস্থার সংঙ্গে ব্যাংকের আমানতের নিগূঢ় সম্পর্ক বিরাজমান। লক্ষ্য করলে দেখা যায় যদি দেশের অর্থনৈতিক অবস্থ। ভাল হয় তবে সেক্ষেত্রে আমানতের পরিমাণ বৃদ্ধি পায় আবার দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা খারাপ হলে আমানতের পরিমাণ হ্রাস পায়। অর্থাৎ জাতীয় অবস্থা ভালো হলে মাথাপিছু আয় বাড়ে ফলে মানুষ সঞ্চয়ের প্রতি আকৃষ্ট হয় এবং ব্যাংক আমানতও বৃদ্ধি পায়। এভাবে দেশের জাতীয় অর্থনৈতিক অবস্থার মাধ্যমে ব্যাংক আমানত পরিমাপ বা নির্ধারণ করা যায়।

২. আঞ্চলিক বা স্থানীয় অর্থনীতির বৈশিষ্ট্য (Characteristics of the Local Economy)

ব্যাংক বা ব্যাংকের শাখা যে স্থানে প্রতিষ্ঠা লাভ করে উক্ত এলাকার তথা আঞ্চলিক অর্থনৈতিক অবস্থার উপর ব্যাংকের আমানতের পরিমান নির্ভর করে। উক্ত অঞ্চলের ব্যবসায়ীক মন্দাবস্থা বিরাজ করলে তুলনামূলক কম আমানত সংগৃহীত হয়। আবার কোন কারণে ব্যবসায়ীক অবস্থা আশানুরূপ ভালো হলে আমানতের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। এজন্য আঞ্চলিক অর্থনৈতিক অবস্থা আমানত নির্ধারণে সহযোগিতা করে।

৩ সমাজ উন্নয়নে সরকারের ভূমিকা (Role of Government With Community )

সরকার যদি দেশের উন্নয়নের লক্ষ্যে গণমুখী অর্থনৈতিক কর্মসূচী পরিকল্পনা ও তার সঠিক বাস্তবায়ন করে তাহলে দেশের আর্থিক অবস্থা উন্নতি লক্ষ্য করা যায়। এরাপভাবে ব্যবসায় তথা শিল্প কলকারখানায় উৎপাদনে সরকারের সহযোগিতা থাকলে দেশের উৎপাদন বৃদ্ধি পায়, জাতীয় আয় বৃদ্ধি পায় এবং সামাজিক ভাবে দেশে উন্নতি পরিলক্ষিত হয়। এতে ব্যাংকে লেনদেনের পরিমাণও বৃদ্ধি পায় এবং আমানতের পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। সুতরাং সরকারের সামাজিক উন্নয়নের ভূমিকা আমানত নির্ধারক হিসাবে কাজ করে।

৪ জনসংখ্যার আপেক্ষিক পরিবর্তন (Relative Changes in population)

জনসংখ্যার হ্রাস ঘটলে ব্যাংকিং লেনদেন কমে যায়। আবার বৃদ্ধি ঘটলে ব্যাংকিং লেনদেন বেড়ে যায়। সুতরাং লক্ষ্য করলে দেখা যায় যত বেশী লেনদেন হয় ততবেশী আমানত সংগৃহীত হয়। মানুষ এক স্থান হতে অন্য স্থানে নানা কারণে স্থানান্তরিত হয়ে থাকে। যার ফলে যে স্থানে অধিকতর লোক সমাগম লক্ষ্য করা যায় সে স্থানে অবস্থিত ব্যাংকটির মধ্যে আমানতের পরিমান অধিক হয়।

আরও দেখুনঃ

মন্তব্য করুন