ঋণ বিশ্লেষণে আর্থিক অনুপাতের ব্যবহার [ Use of Financial Ratios for Credit Analysis ]

ঋণ বিশ্লেষণে আর্থিক অনুপাতের ব্যবহারঃ আর্থিক বিবরণীলদ্ধ তথ্যসমূহ বিশ্লেষণ করেও আবেদনকৃত ঋণের প্রাপ্যতা নিরূপন সম্ভব। অনুপাত বিশ্লেষন তুলনামূলক হতে পারে অথবা গতিধারা নির্ণায়কও হতে পারে।

ঋণ বিশ্লেষণে আর্থিক অনুপাতের ব্যবহার [ Use of Financial Ratios for Credit Analysis ]

ঋণ বিশ্লেষণে আর্থিক অনুপাতের ব্যবহার [ Use of Financial Ratios for Credit Analysis ]

যাহোক আর্থিক বিবরণী লব্ধ তথ্য সমূহ থেকে যে যে মৌলিক অনুপাত ঋণ বিশ্লেষনে সহায়ক ভূমিকা রাখে তার মৌলিক কয়েকটি নিম্নরূপ :

১। তারল্য নিরূপক

২। ব্যবস্থাপনা দক্ষতা নিরূপক। .

৩। পুঁজি-ঋণ ভারসাম্য নিরূপক

৪। লাভজনকতা নিরূপক

নিম্নে বহুল ব্যবহৃত মৌলিক অনুপাতসহ লক্ষ্য করা যেতে পারে :

 

ব্যবহারের উদ্দেশ্য সমূহ

অনুপাতনির্ণায়ক সূত্র সমূহ
১ তারল্য নিরূপক সমূহঃ

-এই অনুপাতের মাধ্যমে ব্যবসায়ের স্বল্পকালীন দায় পরিশোধের জন্য নগদ প্রবাহ পরীক্ষা করে দেখা হয়।

১ চলতি অনুপাতচলতি সম্পত্তি

চলতি দায়

২. এসিড টেষ্ট অনুপাতচলতি সম্পত্তি মজুতপণ্য

চলতি দায়

৩. চলতি টেষ্ট অনুপাতচলতি পুঁজি

চলতি সম্পত্তি

৪ চলতি সম্পত্তি মজুদমাল অনুপাতমজুত মাল

চলতি সম্পত্তি

২. ব্যবস্থাপনা দক্ষতা নিরূপকঃ বিক্রয় ও মুনাফা অর্জনে ব্যবস্থাপনা দক্ষতা নিরাপনকারী১ গত আদায় মেয়াদ অনুপাতআদায়যোগ্য গড় দেনাদার

দিনপ্রতি গড় বিক্রয়

২. মজুতপন্য চক্র অনুপাতবিক্রয়

গড় মজুদপণ্য

৩. স্থায়ী সম্পত্তি চক্র অনুপাতবিক্রয়

নীট স্থায়ী সম্পত্তি

৪. মোট সম্পত্তি চক্র অনুপাতবিক্রয়

মোট সম্পত্তি

৫ মুনাফা বিক্রয় অনুপাতমুনাফা

বিক্রয়

৩. পুঁজি স্বর্ণ ভারসাম্য নিরুপকঃ ব্যবহৃত পুঁজি ও ঋণের সম্পুরক নির্ণায়ক এবং স্বপ্নের উপর প্রদেয় সুদ প্রদানের ক্ষমতা নির্ণায়ক।১  ঋণ সম্পত্তি অনুপাতমোট ঋণ

মোট সম্পত্তি

ঋণ ও মালিকের পুঁজি অনুপাতদীর্ঘ মেয়াদী ঋণ

মোট মালিকের পুঁজি পাওনা

৩. সুদের গুনিতক অনুপাতসুদ ও কর পূর্ব মোট আয়

বার্ষিক সুদ ব্যয়

প্রদেয় গড় পাওনাদার চক্র অনুপাতপ্রদেয় গড় পাওনাদার

দিন প্রতি গড় ক্রয়

8.  লাভজনকতা নিরাপক

সম্পত্তি বিক্রয়ের তুলনায

আপেক্ষিক লাভজনকতা নিরাপক

১ বিক্রয়লদ আয়নীট আয়

বিক্রয়

২ সম্পত্তি লব্ধ আয়নীট আয়

মোট সম্পত্তি

 

৩. মালিকের মোট পাওনালব্ধ আয়নীট আয়

মোট মৌলিক পাওনা

মোট মুনাফা বিক্রয় অনুপাতমোট আয়

বিক্রয়

৫. উৎপাদন ব্যয় বিক্রয় ব্যয় অনুপাতউৎপাদন ব্যয়

বিক্রয় ব্যয়

৬. বন্টন ব্যয় বিক্রয় ব্যয় অনুপাতবন্টন ব্যয়

বিক্রয় ব্যয়

৭. প্রশাসনিক ব্যয় বিক্রয় ব্যয় অনুপাতপ্রশাসিনক ব্যয়

বিক্রয় ব্যয়

ঋণ বিশ্লেষণে আর্থিক অনুপাতের ব্যবহার [ Use of Financial Ratios for Credit Analysis ]

ঋণের দলিলাদী [ Documentation of Loans ]

ব্যাংকের ঋণ কার্যক্রম একটি ঝুঁকিপূর্ণ পদক্ষেপ। ফলপ্রসূ এবং দক্ষ ঋণ সম্পাদনের জন্য প্রয়োজন ঋণ সংক্রান্ত কাগজ পত্র ও প্রমানাদি যা ঋণ আদায়ে সহায়ক ভূমিকা রাখতে সক্ষম। প্রয়োজনীয় দলিলপত্র যা ক্ষণের আইনগত ভিত্তি রচনা করে থাকে তা ঋণ খেলাপী কালে অতিশয় প্রয়োজন হয়ে পড়ে। অনেক সময় বার বার তাগাদা সত্বেও ঋণ পরিশোধ ঋণ গ্রহীতা ইচ্ছাকৃত অবহেলা প্রকাশ করলে বা ঋণ পরিশোধ তাগাদার ব্যাংককে এড়িয়ে চললে ব্যাংক নিজের স্বার্থ-রক্ষার্থে আদালতের শরনাপন্ন হয়ে থাকে। আদালত সাধারণত ঋণ চুক্তির আইনগত বৈধতা, জামানত সম্পত্তির মালিকানা তথা আইনগত বৈধতা ও অন্যান্য সম্পৃক্ত বিষয়াদী প্রমান সাপেক্ষে বিবেচনা করে থাকে।

অতএব ব্যাংকের নিজের স্বার্থে ঋণ সংক্রান্ত সকল প্রকার দলিলী প্রমাণ সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও প্রয়োজনে ব্যবহার করা অনেক জটিল অবস্থা এড়ানোর জন্য আবশ্যক।

যদিও প্রত্যেক ধরণের ঋণের জন্য একটি ঋণ চুক্তি উভয় পার্টি কর্তৃক স্বাক্ষরিত হয়ে থাকে। এটি প্রতিটি ক্ষণের জন্য গ্রহণযোগ্য একটি প্রামানিক দলিল বিশেষ। কিন্তু ঋণের প্রকারভেদে এবং জামানতের প্রকারভেদে ঋণের দলিলাদির ভিন্নতা পরিলক্ষিত হয়ে থাকে।

তবে সাধারণত সকল ধরণের কার্যক্রমের জন্য যে সকল প্রামানিক দলিলাদী কমবেশী একই রূপ তাদের প্রধান কয়েকটি নিম্নরূপ :

১। মূল ঋণ চুক্তি পত্র।

২। পূরণকৃত ঋণের আবেদন পত্র ।

৩। ঋণগ্রহীতার আর্থিক বিবরণী সমূহ।

৪। ঋণ বিশ্লেষণ প্রতিবেদন।

৫। প্রদত্ত জামানতের প্রমাণপত্র সমূহ।

৬। ঋণ গ্রহীতার স্বপক্ষে ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তি ও তার স্বাক্ষর।

৭। ঋণ গ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের ঋণ গ্রহণের স্বপক্ষে পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত।

৮। গ্রহীতা অংশীদারী কারবারের পক্ষে চুক্তিনামা সম্পত্তি।

৯। যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিশ্চয়তা প্রদান পত্র।

১০। নিশ্চয়তা প্রদানকারী ব্যক্তি তথা প্রতিষ্ঠানের আর্থিক বিবরনী।

১১। গ্রহীতা ও ব্যাংকের মধ্যে যোগাযোগের কপি বা অন্যান্য প্রমাণপত্র

১২ বছকী শুহি চুক্তিনামা।

১৩। সাধন প্রদত্ত সম্পত্তির প্রমান পত্র।

ঋণ বিশ্লেষণে আর্থিক অনুপাতের ব্যবহার [ Use of Financial Ratios for Credit Analysis ]

উপরে প্রদত্ত দলিলাদী প্রত্যেকটি ঋণ গ্রহীতার ফাইলে সংরক্ষণ করা আবশ্যক। স্বপ্নের ভিন্নতার কারতে প্রত্যেক ধরণের মঞ্জুরীকৃত ঋণের জন্য কিছু আলাদা দলিলাদি সংরক্ষণ আবশ্যক এরূপ কয়েকটি দলিলের উদাহরণ নিম্নে উল্লেখ করা গেল :

(1) Fixed Deposit Receipt (FDR).

(2) Letter of Attorney

(3) Demand Promissory Note

(4) Letter of Continuity

(5) Deed of Hypothecation

(6) Letter of Guarantee.

(7) Mortgage of Property

(8) Latest Stock Statement.

(9) Letter of Undertaking

(10)Policy in original duly assigned in favour of the bank

(11) Notice of Assignment

(12) Stamped Letter on Lien.

(13) Standing instruction to the bank for payment of promises to the debit of borrowe account

(14) An undated letter signed by the policy holder giving consent to surrendering the policy

(15) Notes or Bonds duly endorsed in favour of bank

(16) Memorandum of Deposits,

(17) A declaration from the party that the securities are the property of the borrower a free from all encumbrances

(18) Letter of credit from third party

(19) Delivery Note of Securities.

(20) Certificate of the approved gold testor

(21) Declaration of ownership by the borrower

(22) Legal Assignment of Debt

(23) Power of Attorney executed by borrower in favour of bank

(24) Agreement for pledge or agreement for each credit:

(25) Letter of lien (Containing set off clause)

(26) Insurance policy covering goods against all risks

(27) Invoice of goods pledged.

(28) Delivery of possession of go down

(29) Certificate for registration of charge (in case of campanies)

(30) Mortgage of property if any as collateral security

(31) Letter of instructions for collection of bills/ cheques from place where the bank no branches or agencies.

আরও পড়ুনঃ

মন্তব্য করুন