সাধারণত যে ধরণের ব্যবসায় ব্যাংক ঋণ পেয়ে থাকে তাদের বৈশিষ্ট [ Characteristics of Business who usually get bank loan ]

সাধারণত যে ধরণের ব্যবসায় ব্যাংক ঋণ পেয়ে থাকে তাদের বৈশিষ্টঃ ব্যাংক সাধারণত লাভসহ ঋণ ফেরৎ পাওয়ার আশায়ই ঋণ বিতরণ করে থাকে। ব্যাংকের বিবেচনায় যে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান গৃহীত ঋণের টাকা সঠিক সময়ে সুদে আসলে ফেরৎ দিয়ে শূন্য শূন্য এরূপ সহযোগিতা নিয়ে থাকে এমন ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানকে ব্যাংক রূপ প্রধানে অপেক্ষাকৃত বেশী অগ্রাধিকার দেয়।

সাধারণত যে ধরণের ব্যবসায় ব্যাংক ঋণ পেয়ে থাকে তাদের বৈশিষ্ট [ Characteristics of Business who usually get bank loan ]

সাধারণত যে ধরণের ব্যবসায় ব্যাংক ঋণ পেয়ে থাকে তাদের বৈশিষ্ট [ Characteristics of Business who usually get bank loan ]

ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান অগ্রগণ্য বলে বিবেচিত হয়ে থাকে তাদের বৈশিষ্ট্য নিম্নরূপঃ

ব্যাংক ঋণ

১. গড় লাভজনক তার চেয়ে কম ব্যবসায়
২. সম্প্রসারণশীল ব্যবসায়
৩. অপেক্ষাকৃত উন্নয়নশীল ব্যবসায়
৪. অপেক্ষাকৃত ক্ষুদ্রাকার ব্যবসায়
৫. পুনঃপুনঃ ঋণ গ্রহণকারী ব্যবসায়

নিম্নে উল্লেখিত ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের প্রধান বৈশিষ্ট্যসমূহ নির্দেশ করা গেলঃ

১.গড় লাভ জনকতার চেয়ে কম ব্যবসায় (Business of Less than Average Profitability) :

সকল ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান আরম্ভ হওয়ার পর এখনও পুরোদমে কার্যক্রম পরিচালনায় সক্ষম হয় ত উদ্যোক্তা বৃন্দের সদ্য প্রচেষ্টা নিবেদনে এ সকল ব্যবসায় আরও ভালো করার অভিজ্ঞতা রয়েছে। সূত এরূপ ব্যবসাসমূহ ঋণের উত্তম ব্যবহার করে ব্যবসায়ের উন্নতি সাধনে সতর্ক থাকে। ফলে ব্যাংকের প্রদত্ত নিরাপদ থাকে। আর জন্যই ব্যাংক ঋণ মক্কেল হিসেবে এরূপ ব্যবসায় সমূহ ঋণের উত্তম ব্যবহার করে ব্যবসায়ীকে সমাদর করে থাকে।

সাধারণত যে ধরণের ব্যবসায় ব্যাংক ঋণ পেয়ে থাকে তাদের বৈশিষ্ট [ Characteristics of Business who usually get bank loan ]

২. পুনঃপুনঃ ঋণ গ্রহণকারী ব্যবসায় (Repeat Customer) :

একবার ঋণ প্রদান করে তা ঋণ গ্রহীতা থেকে ফেরৎ নিয়ে বসে থাকলে ব্যাংক ব্যবসায় লাভ করা অসম্ভব। অপরপক্ষে নতুন ঋণ আবেদনকারী ব্যবসায়ীর ঋণ প্রাপ্যতা বিশ্লেষণ করার সময় বিশ্লেষণ খরচ ও কারিগরী দক্ষতার প্রয়োজন হয়। এর পরও নতুন ঋণ মক্কেল চিহ্নিত করতে ব্যাংকের ভুল হওয়ার ঝুঁকি থাকে প্রচুর। এহেন অবস্থ। পরিহার করার লক্ষ্যে ব্যাকে সাধারণত লেনদেনে বিশ্বাসযোগ্যতা প্রমান করেছে এমন বিদ্যমান ঋণ গ্রহীতা মক্কেলকে অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে।

৩. অপেক্ষাকৃত ক্ষুদ্রাকার ব্যবসায় (Relatively Smaller Business Units) :

মুদ্রা ও পুঁজি বাজারে কার্যরত প্রতিষ্ঠানসমূহ ও ব্যবহৃত দলিলাদী অর্থাৎ ঋণ পত্র বাণিজ্যিক ব্যাংকের প্রতিযোগী এবং এদের ঋণ কার্যক্রমের বিকল্প উৎস হিসেবে বিদ্যমান। সাধারণত: ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান সমূহ মুদ্রা বাজার তথ্য পুঁজি বাজারের সুযোগ গ্রহণযোগ্য বলে বিবেচিত হয় না। অতএব এরূপ ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান সমূহ বিকল্প উৎস না পেয়ে ব্যাংকের সংগে বিশ্বস্তার সহিত লেনদেন সম্পন্ন করে বিধায় ব্যাংক সাধারণত ক্ষুদ্র অথচ কনযোগ্য প্রতিষ্ঠানকে ঋণ বিতরণ করে অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে।

৪. অপেক্ষাকৃত উন্নয়নশীল ব্যবসায় (Moderately Young Business House) :

ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে যেগুলো যথেষ্ট বৃহৎ হয়েছে এবং স্থিতিশীল মুনাফা অর্জন ক্ষমতা লাভ করেছে সেগুলো পুঁজি পরিকল্পনার মাধ্যমে ভবিষ্যৎ তারল্য প্রয়োজন নির্ধারন করে থাকে। এবং প্রতিবছর অর্জিত কার্যকরী মুনাফা বিক্রয় করা সম্পত্তির মূল্য বৃদ্ধি জনিত লাভ থেকে আয় এমনভাবে বিনিয়োগ বা রিজার্ভ করে রাখে যে প্রয়োজনের সময় নিজস্ব তহবিলই যথেষ্ট হয় বিধায় এ সকল ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানসমূহের ব্যাংক ঋণ প্রয়োজন নাও হতে পারে।

কিন্তু গতিশীল উন্নয়নশীল ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান যেগুলো কাঙ্খিত আকার লাভে এখনও সফল হয়নি সেগুলোর নির্ভরযোগ্য পরিমাণ রিজার্ভ নাও থাকতে পারে। আর এ কারণেই এ সকল মধ্যম বয়সী ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান সমূহ প্রায়শ ব্যাংক ঋণ প্রত্যাশী হয়ে থাকে। আর ব্যাংক সঙ্গত কারণেই এরাপ ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের সাথে ঋণ লেনদেন করতে অধিক আগ্রহী থাকে।

সাধারণত যে ধরণের ব্যবসায় ব্যাংক ঋণ পেয়ে থাকে তাদের বৈশিষ্ট [ Characteristics of Business who usually get bank loan ]

৫. সম্প্রসারণশীল ব্যবসায় (Expanding Business ) :

কাম্য পর্যায় প্রাপ্ত ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান সমূহের তারল্য প্রয়োজনীয়তা স্থিতিশীল থাকে বিধায় ব্যবসায় নিজস্ব সম্পত্তি তথা রিজার্ভ দ্বারা এদের আর্থিক তারল্য প্রয়োজনীয়তা পূরণ কষ্টকর হয় না। কিন্তু যে সকল ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান তথা উদ্যোক্তাগণ তাদের ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের অর্জিত পর্যায় নিয়ে সন্তুষ্ট নয় বরং আধুনিকায়ণ উন্নততর প্রযুক্তিগত সম্পত্তি উন্নততর উৎপাদন প্রক্রিয়াপ্রয়োগ করে ব্যবসায় সম্প্রসারণে প্রত্যাশী সেসকল ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান পুনঃ পুনঃ ব্যাংক ঋণ প্রত্যাশী হয়ে থাকে এমনকি এরূপ ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানসমূহ বড় বড় পরিমাণের ব্যাংক ঋণ গ্রহণ করে ব্যাংকের মর্যাদাশীল মক্কেল (prime Customer) হিসেবে পরিগণিত হয়ে থাকে।

আরও পড়ুনঃ

মন্তব্য করুন