ব্যাংক ঋণের গুরুত্ব [ Importance of Bank Loan ]

ব্যাংক ঋণের গুরুত্ব [ Importance of Bank Loan ]ব্যাংক অর্থনৈতিক উন্নয়নের হাতিয়ার। ব্যবসায় বাণিজ্য এমনকি কৃষিকাজ উন্নততর প্রযুক্তির মাধ্যে উৎপাদন বৃদ্ধিকল্পে প্রয়োজন ব্যাংকের ঋণ সহায়তা। গবেষণায় দেখা গেছে দক্ষ ব্যাংকিং কার্যক্রম বিস্তৃতি অর্থনৈতিক উন্নয়নের সংগে সংশ্লেষপূর্ণ যে দেশে ব্যাংকিং কার্যক্রম যতবেশী উন্নত ও দক্ষ সে দেশ কৃষি ব্যবসায় বাণিজ্য তথা অর্থনৈতিক উন্নয়নে ততবেশী অগ্রসরমান। অতএব একথা বলা অত্যুক্তি হবেনা যে দক্ষ ব্যাংক ব্যবস্থার পরোক্ষ অবদানই হল অর্থনৈতিক উন্নয়ন। একটি অপরটির সাথে নিবিড়ভাবে সম্পর্কযুক্ত এবং একটি অপরটির সংশ্লেষক। যাহোক শিল্প বাণিজ্য কৃষি অন্যান্য অর্থনৈতিক ক্রিয়াকাণ্ডের স্বপ প্রদানের মাধ্যমে এবং সরবরাহকৃত ঋণের মাধ্যমে বিনিয়োগ তথা পুঁজি সৃষ্টি করে ব্যাংকের ঋণ কার্যক্রমে উন্নতি সহায়ক ভূমিকা রাখে।নিচে এরূপ ধারণা বিশ্লেষণ করা গেল :

ব্যাংক ঋণের গুরুত্ব [ Importance of Bank Loan ]

ব্যাংক ঋণের গুরুত্ব [ Importance of Bank Loan ]

ঋণের গুরুত্বের কারণ সমূহ

(ক) ব্যবসা বাণিজ্যে ঋণের গুরুত্বঃ

ব্যবসায় বাণিজ্যে এক্ষেত্রটি ব্যবসায় বাণিজ্যের উন্নতির লক্ষ্যে ব্যাংক কণ নানাভাবে সহযোগিতা প্রদান করে থাকে। নিম্নে এরূপ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপের অবতারণা করা গেলঃ

১. ঋণ আমানত সৃষ্টি Creation of Credit Deposits

২. মূলধন গঠন : Formation of Capital

৩. মূলধন বিনিয়োগ Investment of Capital

৪. অর্থনৈতিক উন্নয়নে ভূমিকা : Role in the Economic Development

খ. আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে ঋণের গুরুত্ব :

আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে লেনদেন সহজতর ও গতিশীল করার লক্ষ্যে ব্যাংক নিম্নোক্ত কার্য সম্পাদন করে থাকে :-

৫. কর্ম সংস্থান Employment

৬. কৃষি উন্নয়ন : Agricultural Development

৭. শিল্পোন্নয়ন Industrial Development

৮. আঞ্চলিক উন্নয়ন Regional Development

৯. আমদানী-রপ্তানী অর্থায়ন : Financing Export Import

১০. বিনিময় বিল হুন্ডি ইত্যাদি ভাঙ্গানো : Discounting Bill of Exchange. Bank Draft ete

১১. বৈদেশিক বাণিজ্যে অর্থসংস্থান : in Foreign Trade

১২. মূলধন সরবরাহ : Capital Supply

১৩. বৃহদায়তন উৎপাদনে সহায়তা Help in large scale production

ব্যাংক ঋণের গুরুত্ব [ Importance of Bank Loan ]

গ. কৃষিক্ষেত্রে ঋণের অবদানঃ

কৃষিকাজে ঋণের যে সমস্ত অবদান লক্ষ্য করা যায় তা নিম্নরূপ :-

১৪.খাদ্যশস্য ঋণ : Crop Credit

১৫. অর্থকরী শস্যের ঋণ : Cash Crop Credit

১৬. ফলের বাগানের জন্য ঋণ : Horticulture Credit

১৭. গুদামজাতকরণ ঋণ : Warehouse Credit

১৮. পল্লী ঘরবাড়ি তৈরীর জন্য 1 Rural Housing Credit

১৯. হাঁস-মুরগী ও মৎস খামার ঋণ : Poultry & Fisheries.

২০ ক্ষুদ্র ও হস্তচালিত কুটির শিল্পে ঋণ : Small & Cottage Industries Credit

২১ কৃষি যান্ত্রিকীকরণ : Agri Mechanisation Credit

২২.উন্নত বীজ Improved Seed Credit

২৩. রাসায়নিক সার ব্যবহার ঋণ : Chemical Fertilizer Credit

২৪. অন্যান্য যন্ত্রপাতি : Other Tools Machines Credit

ব্যাংক ঋণের গুরুত্ব [ Importance of Bank Loan ]

ঘ. ভোক্তা ঋণের গুরুত্বঃ

সমাজে মানুষের জীবন যাত্রার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে বাণিজ্যিক ব্যাংক নিম্নোক্ত ঋণ সহায়তা প্রদান করে

২৫. গৃহ নির্মাণ ঋণঃHousing Loan

২৬. শিক্ষা ঋণঃ Education Loan

২৭. গাড়ি ঋণঃ Car Loan

২৮ বিবাহ ঋণঃ Marriage Loan

ঙ. আত্মকর্মসংস্থান ঋণঃ

পল্লী তথা শহর এলাকার শিক্ষিত অশিক্ষিত অনেক যুবক সামান্য পুঁ অভাবে অর্থনৈতিক ক্রিয়াকান্ডে সম্পৃক্ত হতে পারছেনা। ব্যাংকসমূহ এরূপ বেকার অথচ পরিশ্রমী যুবকদেরকে আয় বর্ধক (Income Generating Activity) করে স্বনিয়োজিত থাকতে ঋণ সহায়তা প্রদান করে থাকে। নিম্নে কয়েক ধরণের এরূপ আত্ম কর্মসংস্থান ঋণের উল্লেখ্য করা গেল

২৮. মহিলা আত্মকর্মসংস্থান ঋণ : Woman Self Employment Loan

২৯. কারিগরী আত্ম কর্মসংস্থান কণ: Technical Self Employment Loan

৩০. দোকানদার আত্মকর্মসংস্থান ঋণ : Shopkeeper Self Employment Loan

৩১. ক্ষুদ্র ব্যবসায় আত্মকর্মসংস্থান ঋণ : Small Business Self Employment Loan

উপরোক্ত ঋণ কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করলে দেখা যাবে ব্যাংক ঋণের গুরুত্ব অসীম। এই ঋণ কার্যক্রম সাধারণ ভাবে দুটি মূল লক্ষ্য অর্জনের নিরিখে পরিচালিত হয়ে থাকে। যথাঃ

(১) মুনাফার লক্ষ্যে পরিচালিত ব্যাংক কার্যক্রম (Profit Directed Loan Activities)

(২) জাতীয় অগ্রাধিকারের নিরিখে পরিচালিত ঋণ কার্যক্রম (National Priority Directed Loat Activities)

দ্বিতীয় ধরণের ঋণ কার্যক্রম সম্পাদন করে ব্যাংকের তাৎক্ষণিক মুনাফা অর্জন যথেষ্ট না হলে ও এরূপ কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশের পশ্চাৎপদ জনগোষ্ঠীর জীবন ধারণের মান ও কর্মসংস্থান বৃদ্ধি করে ব্যাংক নিজেদের ভবিষ্যতের আমানত বৃদ্ধি করে ব্যাংক চাহিদা বৃদ্ধির বাস্তব পদক্ষেপ রাখে।

ব্যাংক ঋণের গুরুত্ব [ Importance of Bank Loan ]

মেয়াদ ভিত্তিক ঋণের অধিকতর শ্রেণী করণ [ Further Classification of Loan by Periodicity ]

মেয়াদ ভিত্তিতে ঋণ স্বল্প মেয়াদী ও দীর্ঘ মেয়াদী হয়ে থাকে। যদিও মধ্যম মেয়াদী ঋণের প্রচলন রয়েছে। কাল ভিত্তিতে স্বল্প অথবা দীর্ঘ এটির কোন চূড়ান্ত সংজ্ঞা বা সর্ব কালে পৃথিবীর সর্বত্র গ্রাহ্য সূত্র নাই। এক ব্যাংক যা নিজের জন্য স্বল্প বলে স্থির করে অপর ব্যাংক বলে পরিগণিত করতে পারে যাহোক উন্নত অর্থনীতিতে (Mature Economics) পর দীর্ঘ মেয়াদের ভিতরেও অধিকতর কালরে চিহ্নিত করে ঋণের করা হয়ে থাকে। যা সারণীতে দেখা যেতে পারে।

মেয়াদের বৈশিষ্ট্য
স্বল্প মেয়াদী ঋণএরুপ ঋণের মেয়াদ অর্থপূর্ণ কাল সাধারণত ১ বছর
১.স্থিতিশীল Fixed Loanএক বছর বা কম সময়ের জন্য নির্দিষ্ট অংকে নির্দিষ্ট পরিমাণে দেয়া হয়।
২.আবর্তনশীল ঋণ Revolving Credit Unitনির্দিষ্ট অংকে নির্দিষ্ট মেয়াদের ১ বছরের ঋণ সুবিধা যা একবার গ্রহণ করে পরিশোধ করে পুনঃগ্রহণযোগ্য
৩. উপস্থিত নির্ভরশীল ঋণ Stand by Credit Lineবাণিজ্যিক ঋণপত্র ভিত্তিক ঋণ সুবিধা। ব্যাংক এরূপ গণপত্র ইস্যুকারী প্রতিষ্ঠানকে এই মর্মে নিশ্চয়তা দেয় যে যখনই এরাপ অবসায়ন তথা ভাঙ্গানোর কালে ব্যাংক প্রয়োজনীয় ঋণ সুবিধা দিতে সদা প্রস্তুত।
মেয়াদী ঋণ Term Loan এরপ ঋণের মেয়াদ পূর্ণ কাল ১ বছরের বেশী
১. স্থিতিশীল ঋণ

Fixed Credit

এক বছরের বেশী সময়ে নির্দিষ্ট পরিমাণের স্বপ্ন যার প্রদেয় সুদ নির্দিষ্ট অর্থাৎ ৩ মাস, ৬ মাস বা এক বছর পরে কিন্তু আসল মেয়াদান্তে পরিশোধ্য।
তরঙ্গায়িত ঋণ Serial Creditনির্দিষ্ট অংকে সুবিধা যা নির্দিষ্ট মেয়াদ (অর্থাৎ মাস, ৬ মাস বা ১ বছর) অন্তর সুদাসল পরিশোধ করে পুনঃবার ঋণ সুবিধা যোগ্য বলে বিবেচিত।
আবর্তনশীল ঋণ ধারা | Revolving Credit

Line

নির্দিষ্ট অংকের নির্দিষ্ট মেয়াদের (১ বছরের বেশী সময়ের স্বপ্ন সুবিধা যা এক বার গ্রহণ করে পরিশোধ করার পর মেয়াদান্তে গ্রহণযোগ্য।
অনাবর্তনশীল ঋণের ধারা

Non-Revoling Credit Line

নির্দিষ্ট অংকের নির্দিষ্ট মেয়াদান্তে (১ বছরে বেশী) যা পরিশোধ করার পর মেয়াদান্তে গ্রহণ করার সুযোগ থাকে না।

আরও পড়ুনঃ

 

মন্তব্য করুন