“মিঃ হাসান কেস” [ কেস নম্বর -২০ ]

“মিঃ হাসান কেস” [ কেস নম্বর -২০ ]

“মিঃ হাসান কেস” [ কেস নম্বর -২০ ]

মিঃ হাসান কেস

মিঃ হাসান ইলেকট্রিক দ্রব্যের জগতে একজন স্বনামধন্য ব্যবসায়ী। মিঃ হাসান তার দ্রব্যের গুণাগুণ ক্রেতার প্রতি সম্মান, ব্যবসার আয়তন ইত্যাদির কারণে বহুদিন ধরে ইলেকট্রিক বাজারে এই সুনাম অর্জন করে। বাজারে এখন সেই শীর্ষ স্থান অধিকার করে আছে। সময়ের ব্যবধানে সে তার ব্যবসা সম্প্রসারণ করে এবং আরও অনেকগুলো ব্যবসা সে দাঁড় করায়। এর মধ্যে উল্লেখ্য, বস্ত্র শিল্প, রপ্তানীমুখী পোষাক শিল্প ইত্যাদি। এতে বোঝা যায় যে, সে সব ক্ষেত্রেই পারদর্শী ও সফল ছিল। সাধারণভাবে আমরা দেখি সব সময়ই ব্যবসায়ীরা নগদ টাকার সমস্যায় পড়ে। কিন্তু কোন সময়ই মিঃ হাসান এই ধরনের সমস্যায় পড়েনি।

আমরা যদি হাসানের ২০ বছর আগে ফিরে যাই তাহলে দেখব সে একজন সাধারণ রেডিও মেকানিক ছিল। উপরোক্ত আলোচনার প্রেক্ষিতে আমরা দেখতে পাই, মিঃ হাসান ছিল একজন সফল ব্যবসা উদ্যোক্তা। প্রাথমিক পর্যায়ে ব্যাংক মাত্র ৫০০০ টাকা মিঃ হাসানকে ক্ষ হিসেবে দিয়েছিল। দেশ স্বাধীনের পরে মিঃ হাসান দারনভাবে ব্যবসা চালাতে থাকে এবং পর্যান্ত লাভ করে। সে ঐ সময়ে বিদেশ থেকে প্রচুর পরিমাণে VCP আমদানী করে এবং এখানে ভাল দামে বিক্রি করে।

বিদেশ থেকে মালামাল আনার জন্য সে শুল্ক অফিসের সাথে লিয়াজো করে এবং সেখানে কাষ্টম অফিসারদের সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে। পরবর্তীতে সে কিছু বিদেশী কোম্পানীর কাছ থেকে এদেশে এজেন্সীশীপ কিনে নেয়। বর্তমানে সে শত কোটি টাকার মালিক। যদিও তার তেমন কোন শিক্ষাগত যোগ্যতা ছিল না। এ পর্যায়ে তার নগদ অর্থের পাহাড় গড়ে উঠলেও সে তার আগের লেনদেনের প্রকৃতি পরিবর্তন করেনি।

সে তার পরিবারকে নিয়ে অস্ত্র বিলাস বহুল জীবন যাপন করতে তার পুত্রকে উচচ শিক্ষায় শিক্ষিত করে এবং তার পুত্র বাবার ব্যবসা চালানো চেষ্টা করতে থাকে। কর্মকর্তা মিঃ হাসানের এই ব্যবহারে অত্যন্ত ক্ষুব্ধ হয়; যদিও হাসান ব্যাংকের সাথে তার সমস্ত লেনদেন ঠিক রাখতে থাকে। আমরা শঙ্কা করছি যে, এই উদ্যোক্তা একদিন মারাত্মক সমস্যার সম্মুখীন হবে।

মিঃ হাসান কেস

 “রিমস্ কেস” [ কেস নম্বর -২১ ]

তুলা আমদানীর লক্ষ্যে জুরিখে অবস্থিত একজন সরবাহকারী মিঃ কেইটন-এর স্বপক্ষে দশ লক্ষ মার্কিন ডলার সমমূল্যের একটি প্রথার পত্র দোলা হল। কিন্তু পশু সরবরাহের পর তৈরী প্রকৃত জাহাজীকরণের দলিলে ত্রুটি থাকার পরও সমঝোতাকারী রোডনবার ওপেনিং ব্যাংককে দলিল গ্রহন করতে অনুরোধ জানায়। ওপেনিং ব্যাংক যথারীতি দলিল গ্রহন করতে চেতা ৮ দলিলাদি গ্রহ অসম্মতি জানায়।

ফলশ্রুতিতে সমঝোতাকারী ব্যাংকও উক্ত দলিলাদি গ্রহনে তাদের অসম্মতি প্রকাশ করে। যার জন্য পণ দেশীয় প্রতিনিধি আমদানীকৃত পণ্য অন্য একজন মিঃ রিমস-এর নিকট বিক্রয়ে বাধ্য হয়। আর তাই সমঝোতাকারী ব্যাংক সহ জাহাজীকরণে দলিল ও অন্যান্য কাগজ সরাসরি দ্বিতীয় ক্রেতার বাকের কাছে পাঠিয়ে দেয়। তখন উ তো (২য় চেতা) ওপেনিং ব্যাংককে জাহাজীকরণের সাথে সম্পর্কিত দলিলাদি যথা বিল অব লেডিজ তাহাদের অনুকূলে একডেকি করতে বলে ও অন্যান সকল প্রয়োজনীয় কাগজপত্র (যার সাথে ইনসুরেন্স সংক্রান্ত কাগজও থাকবে যা পণ ছাড়াবার জন্য দরকার) তাদের কাছে পাঠাতে অনুরোধ জানায়।

ওপেনিং ব্যাংক কি আইনগত ভাবে মিঃ বিস্-এর ব্যাংকের উক্ত অনুরোধ রাখতে পারবে ?

মিঃ হাসান কেস

 “কং ইয়ান কেস” [ কেস নম্বর ২২ ]

উত্তর কোরিয়ার একজন সরবরাহকারী কং ইয়ানের স্বপক্ষে প্রয়োজনীয় মেশিনারী আমদানীর লক্ষ্যে এক লক্ষ পঁচাত্তর হাজার মার্কিন ডলার সমমূল্যের একটি প্রত্যয় পত্র খোলা হল। প্রত্যয় পত্রটি ছিল একটি প্রকল্প বাবা ঋণ সহায়তা। যথারীতি জাহাজীকরনের দলি ওপেনিং ব্যাংকের কাছে এসে পৌছায় এবং উক্ত দলিলাদি সুস্থভাবে পর্যবেক্ষন করে দেখতে পায় যে প্রদত্ত দলিলে নিম্নবর্ণিত অসামা ৩ ত্রুটি রয়েছে।

ক) প্রেরিত পণ্য এস. পি. এস (SGS) এর দ্বারা এল সি-র শর্তানুযায়ী পরীক্ষিত হয়নি।

বায়কের স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য তুমি কি ধরনের আত্মরক্ষা মূলক ব্যবস্থা গ্রহনের পরামর্শ দিবে যদি আমদানীকারক প্রদত্ত দলিলের উপর উল্লেখিত ত্রুটিবিচ্যুতি ও অসামজস্যতা থাকা সত্ত্বেও উক্ত দলিলাদি গ্রহন করতে সম্মত হয়?

“এস. জি. এস কেস” [ কেস নম্বর -২৩  ]

কিছু মেশিনারী ও খুচরা যন্ত্রাংশ ভারত থেকে আমদানী করার জন্য ৫০,০০০ হাজার মার্কিন ডলারের মূল্যমানের একটি প্রায় পত্র খোলা হয়। যথাসময়ে জাহাজীকৃত পণ্যের দলিলাদি হাতে এসে পৌঁছানোর পর তা পরীক্ষা করে দেখা গেল যে দলিল পত্রে নিম্নবর্ণিত ত্রুটি ও অসামজশতা রয়েছে।

ক)এস. জি. এস. (SGS) এর সার্টিফিকেট অনুসারে দেখা যায় যে, সেখানে গোপনে ও অনৈতিকভাবে বাজে কিছু পরিবর্তন করা হয়েছে।

খ) এস. জি. এস. (SGS) সার্টিফিকেট সঠিক নিয়মকানুন ব্যতিরেকে প্রাপকের নামে ইস করা হয়েছে। এস জি এস কোম্পানীর নির্ধারিত

Format-এ সার্টিফিকেট ইস হয় নাই। কেমন করে তুমি সমঝোতাকারী ব্যাংকের কাছে উক্ত দলিলাদি গ্রহনের ব্যাপারে তোমার আপত্তি উত্থাপন করবে এবং তোমার বাকের স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহন করবে ?

আরও পড়ুনঃ

মন্তব্য করুন