সমস্যাগ্রস্থ ঋণের কারণসমূহ [ Causes of Problem Loans ]

সমস্যাগ্রস্থ ঋণের কারণসমূহঃ নানা কারণে ব্যাংকের আদায়যোগ্য ঋণ সমস্যাগ্রস্থ হয়ে পড়তে পারে। ব্যাংকের ঋণ কার্যক্রমে দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তাবৃদ্ধ সতর্কতার সাথে অর্পিত দায়িত্ব পালন করলে ঋণ সমস্যাগ্রস্থতা সচরাচর নিতান্ত কমই হয়ে থাকে।

সমস্যাগ্রস্থ ঋণের কারণসমূহ [ Causes of Problem Loans ]

দায়িত্বে অবহেলা বিলম্বে দায়িত্ব পালন উপযুক্ত দক্ষতা ছাড়া কার্যসম্পাদন, তাড়াহুড়ো করে বিশ্লেষন, অসম্পূর্ণ তথ্যভিত্তিক ঋণ বিশ্লেষণ, ঋণ-মঞ্চেলের নেতিবাচক ব্যবসায়ীক অবস্থা সম্পর্কে উদাসীনতা, পক্ষপাতিত্ব ইত্যাদি কারণে ব্যাংকের প্রদত্ত ঋণ সমস্যাগ্রস্থতা পরিগ্রহ করতে পারে। নিজের সারণীতে ব্যাংক ঋণ যে যে কারণে সমস্যাগ্রস্ত হয়ে পড়ে তা দেখা যেতে পারে।

সমস্যাগ্রস্থ ঋণের কারণসমূহ [ Causes of Problem Loans ]

সমস্যাগ্রস্থ ঋণের কারণসমূহ [ Causes of Problem Loans ]

পরিমাণগত কারণসমূহ
Quantitative Causes
গুণগত কারণসমূহ
Qualitative Causes
১ অতিমাত্রায় লাভের আশায় অবিবেচনা প্রসূত অতিরিক্ত পরিমাণে ক্ষণ সম্প্রসারণ।১ অসম্পূর্ণ তথ্যের ভিত্তিতে ঋণ বিশ্লেষন।
২ প্রতিযোগী ব্যাংকের তুলনায় বড় অংকের ঋণ প্রদানে উচ্চাকাংখা।২ অপর্যাপ্ত ও ত্রুটিপূর্ণভাবে ঋণ প্রস্তাব গ্রহণ।
৩. ঋণ গ্রহীতার পরিশোধ ক্ষমতার উর্ধ্বে অতিরিক্ত ঋণ বিতরণ।৩ কারিগরী যোগ্যতা ব্যতিরেকে অদক্ষ ভাবে ঋণ আবেদন পর্যবেক্ষন ও বিশ্লেষণ
৪ অপর্যাপ্ত জামানত ভিত্তিক ঋণ প্রদান।৪ অসংগতি পূর্ণ ঋণের শর্তাদী আরোপ ।
৫ নীট সম্পত্তি ভিত্তিক ঋণ প্রদান না করে কেবল ব্যবসায়ীক লেনদেন ভিত্তিক ঋণ প্রদান৫ অতিরিক্ত পক্ষপাতিত্ব মূলক ঋণ প্রদান যথাঃ বন্ধু বান্ধব,আত্মীয় স্বজন পরিচালকও সরকারী আমলাদের নামে যোগ্যতা না থাকলেও ঋণ প্রদান।
৬ বাজার মূল্যের অতিরিক্ত মূল্যমান ধরে জামানত গ্রহণ।৬ ঋণ কর্মপন্থায় ঋণ গ্রহীতার অসহযোগিতার জন্য আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের অস্পষ্টতা।
৭ দলিলাদীর আনুষ্ঠানিকতা সম্পাদন করার পূর্বেই ঋণ বিতরণ।৭. তদারকিহীনতা বা অপর্যাপ্ত ঋণ তদারকি
৮ প্রয়োজনীয় অতিরিক্ত জামানত ব্যতিরেকে বড় অংকের ঋণ নবায়ন।৮ পুনরীক্ষণহীনতা বা অপর্যাপ্ত ঋণ পুনরীক্ষণ
৯ বকেয়া সুদ এড়ানোর নিমিত্তে অবৈধভাবে ঋণ নবায়ন করণ।৯ ঋণ চুক্তিমোতাবেক সঠিক সময়ে কিস্তি পরিশোধের তাগাদা দেয়ার ভীরুতা ও অবহেলা।
১০ ত্রুটিপূর্ণ ভাবে নগদান প্রবাহও পরিশোধ ক্ষমতা নিরুপণ।১০ ঋণ ব্যবহার ক্ষমতার উর্ধ্বে নতুন ব্যবসায়ে ঋণ প্রদান
১১ দরখাস্তে উল্লেখিত উদ্দেশ্যে ঋণ ব্যবহার না করে অনুৎপাদনশীল খাতে ঋণ স্থানান্তর নিয়ন্ত্রণের প্রতি ব্যাংক অফিসারের উদাসীনতা।১১ অনিশ্চিত ফটকা ব্যবসায়ের জন্য প্রদান।
১২ ব্যাংকের নিয়ন্ত্রণ আওতা কার্য আওতা বহির্ভূত এলাকায় ঋণ মঞ্জুর করা।১২ অব্যবসায়ী মালিকী স্থাবর সম্পত্তির বিপরীতে পক্ষপাতিত্ব মূলক ঋণ প্রদান।
১৩ বারবার জমাতিরিক্ত ঋণ আবেদন দেখেও ব্যাংক ঋণগ্রহীতার সমস্যা আঁচ করতে ব্যর্থ হয় বা ইচছাকৃত ভাবে উদাসীন থাকা।১৩ বিশ্বাসযোগ্য নয় এমন দুশ্চরিত্র লম্পট ব্যবসায়ীর নামে ঋণ প্রদান।
১৪ বিক্রয় অযোগ্য শেয়ার বা ঋণপত্র জামানতের বিপরীতে ঋণ প্রদান।
১৫ নিয়মিত আদায় সম্ভাবনা ভিত্তিক ঋণের শ্রেণীকরণ না করা বা ত্রুটিপূর্ণভাবে শ্রেণীকরণ করা।
১৬ ঋণ গ্রহীতার সংগে নিয়মিত যোগাযোগে ব্যর্থতা।
১৭ অস্পষ্ট ও চাপিয়ে দেয়া ঋণ পরিশোধ সারণী।
১৮ ঋণ চুক্তি পত্রে অনুল্লিখিত পরিশোধ সারণী।
১৯ ঋণ গ্রহীতার আর্থিক বিবরণী সংগ্রহে অনীহা বা বিলম্বে সংগ্রহ।
২০ আইনগত জটিলতার কারণে জামানত বিক্রয় করে ঋণ সমন্বয়ে অন্তরায়।
২১ ঋণ কর্মপন্থায় উল্লেখিত অলিখিত ঋণনীতি ও পদ্ধতি অনুসরণে ব্যর্থতা বা উদাসীনতা।
২২ তাড়াহুড়ো করে প্রয়োজনীয় নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া অনুসরণ ব্যতিরেকে ঋণ মঞ্জুর।
২৩ পরিকল্পিতভাবে নিয়মিত ঋণ গ্রহীতার কল কারখানা বা ব্যবসায়ের স্থল পরিদর্শন না করা
২৪ অনিরীক্ষিত ও অস্তিত্ববিহীন সম্পত্তির ভিত্তিতে ঋণ প্রদান।
২৫ ঋণ আবেদনকারী সম্পর্কে ঋণ তথ্য সরবরাহ সংস্থা তথা প্রতিযোগী ব্যাংকসমূহের প্রদত্ত নেতিবাচক প্রতিবেদন অগ্রাহ্য বা অমান্য করে ঋণ বিতরণ।

সমস্যাগ্রস্থ ঋণের কারণসমূহ [ Causes of Problem Loans ]

উপরোল্লিখিত কারণসমূহ পর্যবেক্ষণ করলে বোঝা যাবে ঋণ দাতা ব্যাংক দক্ষ, সৎ ও নিবেদিত প্রাণ ও ব্যাংকের স্বার্থ রক্ষায় সদা সতর্ক এমন কর্মকর্তা/কর্মচারীর মাধ্যমে নির্দেশিত কারণ সমূহের অনেকগুলো প্রতিরোধ করতে সক্ষম। ব্যাংকের ঋণ অফিসের প্রতিটি সেকশনে নিয়োজিত প্রতিটি কর্মচারী দরদ সহকারে দায়িত্ব পালনে যত্নবান হলে সমস্যাগ্রস্থতা কমানো ছাড়াও ঋণ গ্রহীতা মক্কেলের ব্যবসায়ের কাংখিত বজায় রাখতে সক্ষম হবে।

আরও পড়ুনঃ

“সমস্যাগ্রস্থ ঋণের কারণসমূহ [ Causes of Problem Loans ]”-এ 1-টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন